কি ভাবে একটি কফি শপের বিল তৈরী করতে হয়। কফিশপ বিল বই ফরমেট!

কফিশপের বিল বই তৈরী করা খুব সহজ!

বিল বই একটি প্রতিষ্ঠানের পন্য লেন-দেনের গ্রাহনযোগ্য ডকুমেন্ট বা প্রমান পত্র। যে কোন প্রতিষ্ঠানের পন্য লেন-দেনের জন্য বিল বই একটি গুরুত্ব পূন মাধ্যম। বিল বই ছাড়া কোন ক্রয়-বিক্রয় বৈধতা পায় না। একটি প্রতিষ্ঠানের ক্রয় বিক্রয় লেনদেনের জন্য এবং সুষ্ঠ হিসান নিকাষের জন্য বিল বই খুবই গুরুত্ব বহন করে।

কি ভাবে একটি কফি শপের বিল তৈরী করতে হয়
কফিশন লোগো ডিজাইন

কি ভাবে একটি কফিশপ এর বিল বই তৈরী করতে হয়?

অন্য সকল বিল বই যে ভাবে তৈরী করতে হয় ঠিক সেই ভাবেই কফি শপের বিল বই তৈরী করতে হয়। কপিশপের বিল বই সাধারনত একটু ছোট আকারের হয়ে থাকে। তাই কফিশপ বিল ফরমেট ছোট করাই বাঞ্চনিয়। আপনি আপনার চাহিদা অনুয়ায়ী বিলবই তৈরী করবেন। প্রথমে আপনার প্রতিষ্ঠানের একটি লোগো ব্যবহার করবেন। লোগো যেন অবশ্যই ফফি সংক্রান্ত হয়। একটি ভাল লোগো আপনার প্রতিষ্ঠানের জন্য কল্যান বয়ে আনতে পারে। একটি অর্থবহ এবং আকশনীয় লোগো গ্রাহকের নজর কাড়তে সহায়তা করে।

কফি লোগো ডিাজাইন
কফি লোগো ডিজাইন

তাই একটি অথবহ এবং ভালমানের লোগো ব্যবহার করুন। ফ্রিতে লোগো ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। লোগো বসানো হলে এবার আনার প্রতিষ্ঠানের নাম বশান। নামটি একটু বড় ফন্টে দেবার চেষ্টা করুন। সহজো বুঝাজায় এবং স্টালিষ্ট ফন্ট নির্বাচন করুন। এবার আপনার প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা, ফোন নাম্বার এবং ইমেইল নাম্বার যোগ করুন। ক্রমিন নং বসান। গ্রাহকের নাম, ঠিকানা এবং ফোন নাম্বার লিখার যায়গা বরাদ্দ করুন। এবার নিচে সবচেয়ে জরুরী বিক্রয় লেন-দেনের ঘরটি তৈরী করুন। ক্রমি নং সেকশন তৈরী করুন, তার পাশে বিবরনে ঘরটি তৈরী করুন। এবার পরিমান, টাকা এবং মোট টাকার ঘরটি তৈরী করুন। এবার নিচে সবমোট ঘরটি তৈরী করুন। টাকা কথায় লিখার ঘরটি তৈরী করুন। এবার গ্রাহকের এবং আপনার প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষরের সেকশন তৈরী করুন। আপনি চাইলে আপনার বিল ফরমেটের মধ্যখানে আপনার লোগো বা কফি সংক্রান্ত ইমেইজের একটি জলছাপ বা ওয়াটার মার্ক দিতে পারেন।

ফ্রিতে অগনিত বিল ফরমেট পেতে এখানে ক্লিক করুন। পছন্দ করুন এবং বেছে নিন আপনার প্রয়োজনীয় বিল ফরমেট। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: